কক্সবাজারে শুরু হয়েছে তাবলীগ জামাতের দিনের জেলা ইজতেমা গতকাল বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর আমবয়ানú"> কক্সবাজারে শুরু হয়েছে তাবলীগ জামাতের দিনের জেলা ইজতেমা গতকাল বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর আমবয়ানú" />

কক্সবাজারে ৩ দিনব্যাপী তাবলীগ ইজতেমা শুরু, কাল আখেরি মোনাজাত

কক্সবাজারে ৩ দিনব্যাপী তাবলীগ ইজতেমা শুরু, কাল আখেরি মোনাজাত

কক্সবাজারে শুরু হয়েছে তাবলীগ জামাতের দিনের জেলা ইজতেমা গতকাল বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর আমবয়ানের মাধ্যমে প্রথম দিনের কার্যক্রম শুরু হয়েছে বাদে আসর থেকে মূল বয়ান চলে গতকালের বয়ান শেষ হয় রাত টার দিকে ইজতেমায় সবচেয়ে বড় জামাত হবে আজ শুক্রবার জুমার নামাজে লাখো মুসল্লি ইজতেমা ময়দানে সমবেত হবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে কক্সবাজার তাবলিগ জামাতের অধিনে ইজতেমার আয়োজন করা হয়েছে জেলে পার্ক ময়দানের পশ্চিমদক্ষিণ পাশে সমুদ্র কিনার সংলগ্ন খোলা মাঠে তিন দিনব্যাপী ইজতেমা বসেছে


জেলা পর্যায়ে তৃতীয় বারের এই ইজতেমায় প্রথম দিনের শুরুতে আলোচনা করেন কক্সবাজার বিমানবন্দর জামে মসজিদের খতীব ইজতেমা বাস্তবায়ন কমিটির জিম্মাদার আতাউল করিম। প্রতিদিন ফজরের নামাজের পর থেকে এশার নামাজ পর্যন্ত বয়ান চলবে। ইজতেমার মিম্বর থেকে প্রতিদিন ওয়াক্ত নামাজ আদায় হচ্ছে। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে পানীয় জলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে, ইজতেমা উপলক্ষে প্রথম দিনে কোন মেডিকেল ক্যাম্প বসানো হয়নি। আগামীকাল শনিবার দুপুরে আখেরি মোনাজাতে ইজতেমা শেষ হবে


তাবলীগ জামাতের সাথীরা বলেন, বর্তমানে বিশ্ব ইজতেমাকে দুই ভাগে ভাগ করে দেয়া হয়েছে। বিশ্ব ইজতেমায় ৩২ জেলার মানুষ পর্বে অংশগ্রহণ করবেন এবং বাকি ৩২ জেলার মানুষ নিজ নিজ জেলায় ইজতেমা করার অনুমতি দিয়েছেন মুরব্বিরা। তারই অংশ হিসেবে সীমান্তবর্তী জেলা কক্সবাজারে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হচ্ছে


ইজতেমা আয়োজক কর্তৃপক্ষ জানায়, ইজতেমা প্রাঙ্গনে বসানো হয়েছে প্রায় টয়লেট,  হাজার প্রাবখানা, শতাধিক অস্থায়ী নলকূপ, সাতটি বিশাল আকারের ওজুখানা, ২২টি পানির মটর। মুসল্লীদের খেদমতের জন্য ইজতেমার কর্তৃপক্ষের এক হাজার ২০০ স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হয়েছে। নিরাপত্তায় জেলা পুলিশের সাড়ে পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবে। আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে সার্বক্ষণিক নিয়োজিত থাকবেন তিনজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। তাবলিগ জামাতের আহলে শুরা মাওলানা মোজাম্মেলুল হক, ছৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম, মাওলানা মোশারফ কাকরাইল মসজিদের মাওলানা মনির বিন ইউসুফসহ দেশবিদেশের আরো বেশ কয়েকজন বক্তা কক্সবাজারের এই ইজতেমায় শরীক হয়েছেন। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ইজতেমা বাস্তবায়ন কমিটির জিম্মাদার আতাউল করিম। তিনি জানান,ইজতেমায় জেলার রামু, চকরিয়া, সদর, মহেশখালী, কুতুবদিয়া, পেকুয়া টেকনাফ,উখিয়া এবং বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি লামা উপজেলার মানুষ ইজতেমায় অংশ নেয়


এছাড়াও কক্সবাজারে অবস্থানরত দেশের বিভিন্ন স্থানের তাবলিগ জামাতের লোকজন বাংলাদেশ অবস্থানরত ওমান, ইন্দোনেশিয়া মালয়েশিয়ার তাবলিগ জামাতের লোকজন অংশ নেবেন। গত এক সপ্তাহ থেকে জেলার বিভিন্ন মসজিদে তারা চিল্লায় আসেন। পুলিশ সুপার . একেএম ইকবাল হোসেন বলেন, ইজতেমা মুসল্লীদের সার্বিক নিরাপত্তার জন্য পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা বলয় তৈরী করা হয়েছে। নিয়োজিত রয়েছে সাড়ে শতাধিক পুলিশ সদস্য


Warning: file_get_contents(http://www.sandwipnews24.com/temp/.php): failed to open stream: HTTP request failed! HTTP/1.1 404 Not Found in /home/sandwipnews/public_html/m/news_details.php on line 77

Warning: Invalid argument supplied for foreach() in /home/sandwipnews/public_html/m/news_details.php on line 79