রাখাইনে গণহত্যা : আইসিজেতে বিচারের শুনানি শুরু

রাখাইনে গণহত্যা : আইসিজেতে বিচারের শুনানি শুরু

সুচি সরকারের বিদ্বেষমূলক প্রচার রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন উস্কে দিয়েছে ; গুরুত্বপূর্ণ আলামত ধ্বংস করা হয়েছে; সেনাবাহিনী মানবতা বিরোধী অপরাধ করেছে; হেগে আদালতের বাইরে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

 

জনকণ্ঠ :: রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে শুনানি শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে। নেদারল্যান্ডসের হেগের ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস-এ (আইসিজে) মঙ্গলবার প্রথম দিনের শুনানি শেষ হয়েছে। বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টায় বিচারপূর্ব এই শুনানি কার্যক্রম শুরু হয়। পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া আইসিজে-তে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগ এনেছে। আন্তর্জাতিক এ আদালতে গাম্বিয়ার বিচারমন্ত্রী আবু বাকার তাম্বাদু শুনানিতে অংশ নিয়েছেন। অপরদিকে, মিয়ানমারের পক্ষে যে প্রতিনিধি দল পাঠানো হয়েছে তাতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সে দেশের এনএলডি নেত্রী আউং সান সুচি। খবর রয়টার্স, বিবিসি, সিএনএন, আলজাজিরা, এপি ও এএফপির।

এদিকে, কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফের রোহিঙ্গা শিবিরগুলোতে রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগের বিচার শুরু হওয়ায় রীতিমতো উল্লাস শুরু হয়েছে। এ পরিবেশ চলছে গত দু’দিন ধরে। তবে মঙ্গলবার বিচারপূর্ব শুনানির প্রথম দিনে রোহিঙ্গা শিবিরগুলোতে গাম্বিয়ার পক্ষে স্লোগান উঠেছে। পাশাপাশি আউং সান সুচিকে হত্যাকা-ের নায়ক ও খুনী অভিহিত করে স্লোগান দিয়েছে রোহিঙ্গারা। এছাড়া গত আড়াই বছরেরও বেশি সময় ধরে রোহিঙ্গাদের চাপে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত উখিয়া-টেকনাফের জনগণও আশায় বুক বেঁধেছে এ কারণে যে, এবার যদি রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার কোন ব্যবস্থা হয়। এ মামলার শুনানিতে রোহিঙ্গাদের আশ্রয়দাতা দেশ বাংলাদেশের ১৭ প্রতিনিধি দলও অংশ নিচ্ছে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানানো হয়েছে।

মঙ্গলবার শুনানির শুরুতে গাম্বিয়ার বিচারমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা মুসলমানদের নির্বিচারে হত্যার প্রশ্নে বিশ^ বিবেককে জাগ্রত করতেই তার দেশ আইসিজে-তে অভিযোগ এনেছে। তিনি বলেন, সারাবিশ^ কেন নীরব দর্শক? কেন আমাদের জীবদ্দশাতে আমরা এটা ঘটতে দিচ্ছি? গাম্বিয়ার মন্ত্রী আরও বলেন, ‘সবাই মনে করে এখানে মিয়ানমারের বিচার হচ্ছে। মূলত, এখানে বিচার চলছে আমাদের সামগ্রিক মানবতার। গণহত্যার অভিযোগে শুনানির প্রথম দিনে যখন রোহিঙ্গাদের ওপর সে দেশের সামরিক বাহিনীর সদস্যদের একের পর এক নৃশংসতার ঘটনা তুলে ধরা হচ্ছিল, তখন সেখানে পাথরের মতো মুখ করে বসেছিলেন মিয়ানমার নেত্রী আউং সান সুচি।

গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আইসিজেতে মামলার শুনানির শুরুতে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের নির্বিচারে হত্যাকাণ্ড বন্ধে দেশটির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গাম্বিয়ার আইন ও বিচারমন্ত্রী। শুনানির শুরুতে প্রধান বিচারপতির উদ্দেশে তিনি বলেন, গাম্বিয়া যা বলছে তা হলো আপনি মিয়ানমারকে এই নির্বাচার হত্যাকাণ্ড বন্ধ করতে বলুন। বর্বর এবং র্নশংস এসব কাজ; যা আমাদের সবার বিবেককে আঘাত করেছে। এটি এখনও অব্যাহত রয়েছে। নিজ দেশের মানুষকে গণহত্যা বন্ধ করতে হবে। শুনানির শুরুতে এ মামলার প্রধান বিচারপতি আব্দুল কাই আহমেদ ইউসুফ অভিযোগ পড়ে শোনান। সোমালীয় বংশোদ্ভূত এই বিচারপতি পরে গাম্বিয়া ও মিয়ানমারের পক্ষে একজন করে অস্থায়ী বিচারক নিয়োগ দেন। দুই অ্যাডহক বিচারপতি গাম্বিয়ার নাভি পিল্লাই এবং মিয়ানমারের প্রফেসর ক্লাউস ক্রেস। তারা মামলার বিচার প্রক্রিয়ার শুরুতে শপথ নেন।

ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিসের (আন্তর্জাতিক আদালত) ১৫ বিচারকের সঙ্গে প্যানেলে আছেন গাম্বিয়া ও মিয়ানমারের মনোনীত দুই বিচারক। তিন দিনের শুনানি শেষে সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে তারা সিদ্ধান্ত দেবেন।

শুনানিতে গাম্বিয়ার অভিযোগের পক্ষে আরও বলা হয়েছে, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ওপর যে বর্বরতা চালানো হয়েছে তাতে মিয়ানমার আন্তর্জাতিক আইন ভঙ্গ করেছে কি না তা আইসিজে বিচার করবে। মঙ্গলবার বিকেলে বিচারিক এ আদালতে ওআইসিভুক্ত দেশ গাম্বিয়ার পক্ষে আইনমন্ত্রী আবু বাকার মারি তাম্বাদু প্রতিনিধিত্ব করছেন। তিনি সে দেশের এ্যাটর্নি জেনারেল। ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিসের ১৫ বিচারকের সঙ্গে প্যানেলে গাম্বিয়া ও মিয়ানমারের মনোনীত দুই বিচারকও রয়েছেন। প্রাথমিক শুনানি চলবে কাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। শুনানি শেষে সংখ্যাগরিষ্ঠতার মতামতের ওপর ভিত্তি করে সিদ্ধান্ত প্রদান করা হবে। এ বিচার আদালতে রাখাইনের নিপীড়িত প্রতিনিধিরাও উপস্থিত রয়েছেন। শুনানি শুরু হওয়ার আগে রোহিঙ্গা প্রতিনিধিরা ন্যায়বিচারের জন্য প্রার্থনা করেন। রাত সাড়ে ৯টায় দেড়ঘণ্টার একটি আলোচনায় মিয়ানমারের অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। ১৫ সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক আদালতের প্রেসিডেন্ট সোমালিয়ার আবদুল কায়ী আহমেদ ইউসুফ এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট চীনের শুয়ি হানকিন। অন্য সদস্যরা হলেন স্লোভাকিয়ার বিচারপতি পিটার টনকা, ফ্রান্সের বিচারপতি রনি আব্রাহাম, মরক্কোর বিচারপতি মোহাম্মদ বেনুনা, ব্রাজিলের এন্থেনিও অগাস্তো কানসাদো ত্রিনদাদে, যুক্তরাষ্ট্রের জোয়ান ই ডনোঘুই, ইতালির গর্জিও গাজা, উগান্ডার জুলিয়া সেবুতিন্দে, ভারতের দলবীর ভা-ারি, জ্যামাইকার পেট্রিক লিপটন রবিনসন, অস্ট্রেলিয়ার জেমস রিচার্ড ক্রাফোর্ড, রাশিয়ার কিরিল গিভরিয়ান, লেবাননের নোয়াফ সালাম এবং জাপানের ইউজি ইউয়াসাওয়া।

আইসিজের বিধি অনুসারে, জাতিসংঘের সদস্যভুক্ত যে কোন দেশ অন্য দেশের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আইন ও বিধি বিধান লঙ্ঘনের অভিযোগ উত্থাপন করতে পারে। গণহত্যা প্রতিরোধ ও এর শাস্তি বিধানে ১৯৮৪ সালে স্বাক্ষরিত কনভেনশন লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছে গাম্বিয়া মিয়ানমারের বিরুদ্ধে। উল্লেখ করা যেতে পারে, ১৯৫৬ সালে জেনোসাইড কনভেনশনে স্বাক্ষর করেছে মিয়ানমার। গাম্বিয়াও এ কনভেনশনে স্বাক্ষরকারী একটি দেশ। এ কনভেনশনের আওতায় স্বাক্ষরকারী দেশগুলোই শুধু গণহত্যা থেকে বিরত থাকা নয়, বরং এ ধরনের অপরাধ প্রতিরোধ করা এবং এমন অপরাধের জন্য শাস্তি বিধানেও বাধ্য।

এদিকে, জাতিসংঘের গঠিত স্বাধীন আন্তর্জাতিক ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশন তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, রাখাইনে সেনাবাহিনীর অভিযানে যে ধরনের অপরাধ হয়েছে, আর যেভাবে তা ঘটানো হয়েছে এর মাত্রার ধরন এবং বিস্তৃতির দিক দিয়ে গণহত্যার অভিপ্রায়কে অন্য কিছু হিসেবে চালিয়ে দেয়ার সমতুল্য। এতে আরও বলা হয়েছে, মিয়ানমার নেত্রী আউং সান সুচির বেসামরিক সরকার বিদ্বেষমূলক প্রচারকে উস্কে দিয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ আলামত ধংস করেছে এবং সেনাবাহিনীর মানবতাবিরোধী অপরাধ ও যুদ্ধাপরাধ থেকে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষদের রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে মিয়ানমার সরকারও রাখাইনে নৃশংসতায় ভূমিকা রেখেছে।

জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার এমন অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে মিয়ানমার সরকার বলে আসছে, সে দেশের সেনাবাহিনীর ওই লড়াই হয়েছে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে, কোন জাতিগোষ্ঠীকে নির্মূল করার উদ্দেশ্যে নয়।

এদিকে, গাম্বিয়া রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে অন্তবর্তীকালীন পদক্ষেপ চাইছে বলে জানিয়েছে এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

এদিকে, প্রথম দিনের শুনানি শুরুর পূর্বে প্রধান বিচারক আবদুল কায়ী আহমেদ ইউসুফ রোহিঙ্গা গণহত্যার পুরো অভিযোগ পড়ে শোনান। এরপর রাখাইনে গণহত্যা নিয়ে কথা বলেন অধ্যাপক আয়াম আখাভান। তিনি জানান, কিভাবে মিয়ানমার সেনারা রাখাইনে হত্যা, লুণ্ঠন ও ধর্ষণের মতো মানবতাবিরোধী কাজে লিপ্ত ছিল। এছাড়া রোহিঙ্গাদের পুরো দেশ থেকে কিভাবে বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয় ও নিপীড়ন চালানো হয়। জাতিসংঘের অনুসন্ধানের রিপোর্টের বরাতে তার বক্তব্যে উঠে আসে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রোহিঙ্গাবিরোধী প্রোপাগান্ডার কথাও তুলে ধরেন তিনি। গাম্বিয়ার পক্ষে বক্তব্য দিতে গিয়ে প্রফেসর স্যান্ডিস বলেন, গণহত্যা বিচারের জন্য এ আদালতই সর্বশেষ আশ্রয়স্থল। সারাবিশ^ মামলাটির দিকে তাকিয়ে আছে। মিয়ানমার গণহত্যা বিষয়ে কখনও পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেয়নি। তিনি আরও জানান, গাম্বিয়া এ আদালতের কাছে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ৬টি অন্তবর্তীকালীন আদেশ চায়, যেগুলোর মধ্যে রয়েছে, আর যেন গণহত্যার মতো ঘটনা মিয়ানমারে না ঘটে তা নিশ্চিত করা। আগের গণহত্যার আলামত নষ্ট না করা, রোহিঙ্গা ও মিয়ানমার সরকার উভয় পক্ষকে শান্ত এবং উত্তেজনা প্রশমনে সাহায্য করা, এছাড়া মিয়ানমার জাতিসংঘের তদন্তের বিষয়ে সাহায্য করবে-এ নিশ্চয়তাও চায় গাম্বিয়া। শুনানিতে বক্তব্য রাখার সময় গাম্বিয়ার নিযুক্ত একজন কৌঁসুলি রাখাইনের মংডু শহরে বেশ কয়েকটি পাইকারি খুনের বিবরণ পেশ করেন। মিয়ানমারের সেনারা ওই শহরের রোহিঙ্গা বেসামরিক পুরুষদের হত্যা করে এবং শত শত নারীকে ধর্ষণ করে। আইসিজে’র ওয়েবসাইট থেকে লাইভ স্ট্রিম করা শুনানিতে এসব বিবরণ পড়ে শোনানোর সময় আউং সান সুচির কোন অভিব্যক্তি লক্ষ্য করা যায়নি। কখনও সোজা সামনে তাকিয়ে, কখনও মাটির দিকে দৃষ্টি দিয়ে গাম্বিয়ার বক্তব্য শুনতে দেখা যায় তাকে।

এদিকে, আজ বুধবার মিয়ানমার গাম্বিয়ার অভিযোগের বিষয়ে তাদের মতামত তুলে ধরবে। এ জন্য ইতোমধ্যেই নোবেলে শান্তি পুরস্কারবিজয়ী মিয়ানমারের এনএলডি নেত্রী আউং সান সুচি আদালতে উপস্থিত হয়েছেন। তিনি একটি প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এ প্রতিনিধি দলে সে দেশে অবস্থানরত কয়েক রোহিঙ্গাকেও নেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১১ নবেম্বর আন্তর্জাতিক এ আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা করে পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া। গাম্বিয়ার অভিযোগে রাখাইনে রোহিঙ্গা নিধনে জাতিসংঘের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশনের তদন্তে উঠে আসা ধর্ষণ, হত্যা, অগ্নিকা-সহ মানবতাবিরোধী অপরাধের বিভিন্ন তথ্যও সন্নিবেশিত রয়েছে। উল্লেখ করা যেতে পারে, বিভিন্ন সময়ে জাতিসংঘও রোহিঙ্গা গণহত্যার বিষয়ে মিয়ানমারকে অভিযুক্ত করেছে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া এ শুনানি আগামীকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে চলবে। আজ মিয়ানমারের পক্ষে আউং সান সুচি আইনী মোকাবেলার নেতৃত্বে থাকবেন। উল্লেখ করা যেতে পারে, এর মধ্য দিয়ে এ প্রথমবারের মতো রোহিঙ্গা ইস্যুতে আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য মিয়ানমার কোন গণশুনানিতে অংশ নিচ্ছে। শুনানির দ্বিতীয় দিনে আজ বুধবার অভিযোগের জবাব দেবে মিয়ানমার। কাল বৃহস্পতিবার দু’পক্ষের মধ্যে যুক্তিতর্ক হবে। বিবিসি বলেছে, মিয়ানমারের প্রতিনিধি দলের নেতা হিসেবে সুচি যুক্তি দেখাবেন যে, এ ঘটনা নিয়ে বিচার করার অধিকার আইসিজে’র নেই।

বিভিন্ন আইন বিশেষজ্ঞদের মতে, কোন মামলার চূড়ান্ত রায়ে পৌঁছুতে কয়েক বছর সময় নেয় ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস বা আইসিজে। তবে প্রয়োজনে কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই এ আদালত অন্তবর্তী যে কোন আদেশ দিতে পারে। এবার মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অনুরূপ কোন অন্তবর্তীকালীন আদেশ আসতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। অপরদিকে, রোহিঙ্গা গণহত্যায় ন্যায়বিচারের দাবিতে হেগের আন্তর্জাতিক এ আদালতের বাইরে সাধারণ মানুষ ও বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থার পক্ষে বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। অপরদিকে, রাখাইনে গণহত্যার বিষয়টি স্বীকার করে নিতে আউং সান সুচির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিভিন্ন দেশের সাত নোবেলজয়ী। এসব নোবেলজয়ী একইসঙ্গে ওই গণহত্যার জন্য সুচি ও সেনা কমান্ডারদের জবাবদিহিতার আওতায় আসার আহ্বান জানিয়েছেন।

অন্যদিকে আদালতে সুচির উপস্থিতি নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে রোহিঙ্গারা। সুচিকে গণহত্যার প্রতীক আখ্যা দিয়ে এক সময়কার গণতন্ত্রপন্থী এই নেত্রীর প্রতি তীব্র ঘৃণা প্রকাশ করেছে তারা। মোহাম্মদ জুবায়ের নামে ১৯ বছর বয়সী এক রোহিঙ্গা বলেন, ‘আমরা ধর্ষণ, নিপীড়ন ও হত্যাকাণ্ড দেখেছি। আমাদের চোখের সামনে অনেকে খুন হয়েছে। আমাদের সামনে পালানো ছাড়া কোন পথ ছিল না। এখন আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এগিয়ে আসতে হবে যেন মিয়ানমার তাদের ঘৃণ্য শাস্তি পায়। রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যার জন্য তাদের অবশ্যই দায়ী করতে হবে।’ নুর আলম নামে ৬৫ বছর বয়সী এক রোহিঙ্গা জানান, ২০১৭ সালের ওই অভিযানে ছেলেকে হারিয়েছেন তিনি। বলেন, ‘একসময় আউং সান সুচি শান্তির প্রতীক ছিলেন। তাকে নিয়ে আমাদের অনেক আশা ছিল যে, ক্ষমতায় আসলে অনেক পরিবর্তন আসবে। আমরা তার জন্য প্রার্থনা করেছি। আর এখন তিনি গণহত্যার প্রতীক। আমাদের রক্ষা না করে তিনি খুনীদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। তিনি তাদের হয়ে লড়াই করবেন। আমরা তাকে ঘৃণা করি। তার লজ্জা হওয়া উচিত।’ ৩৫ বছর বয়সী রশিদ আহমেদ জানান, তার পরিবারের ১২ সদস্যকে হত্যা করেছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। তিনি বলেন, শুধু ন্যায়বিচারই আমাদের ক্ষত শুকাতে পারে। আমি জানি, যাদের হারিয়েছি তাদের কখনই ফিরে পাব না। কিন্তু খুনী সাজা পেলে তারা শান্তিতে থাকবে।

এছাড়া হেগে অবস্থিত জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালত ‘ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস’-এ (আইসিজে) রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে করা অপরাধের ব্যাপারে প্রকাশ্যে স্বীকার করার জন্য আউং সান সুচির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিশ্বের সাত নোবেলজয়ী। একইসঙ্গে এই গণহত্যার জন্য সুচি ও মিয়ানমারের সেনা কমান্ডারদের জবাবদিহিতার আহ্বানও জানান তারা। মঙ্গলবার এক যৌথ বিবৃতিতে এই আহ্বান জানানো হয়। বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, শান্তিতে নোবেল বিজয়ী হিসেবে আমরা রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সংঘটিত হওয়া গণহত্যাসহ অপরাধগুলো প্রকাশ্যে স্বীকার করার জন্য নোবেলজয়ী সুচির প্রতি আহ্বান জানাই। আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন যে, এই নৃশসংতায় নিন্দা জানানোর পরিবর্তে সেটা অস্বীকার করেছেন সুচি। এদিকে হেগ থেকে সংবাদদাতা জানান, শুনানি চলাকালে রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে প্রবাসী আõ

More News

অক্সফোর্ডের গবেষণা : ছয় মাসের মধ্যে দ্বিতীয়বার সংক্রমণের সম্ভাবনা নেই অক্সফোর্ডের গবেষণা : ছয় মাসের মধ্যে দ্বিতীয়বার সংক্রমণের সম্ভাবনা নেই

যারা একবার করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন, কমপক্ষে ছয় মাসের মধ্যে তাদের আবার এই ভাইরাস সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। যুক্তরাজ্যে করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সামনের সারিতে থেকে লড়াই করে যাওয়া স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের ওপর এক গবেষণায় এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে।


স্বাস্থ্যকর্মীদের পরীক্ষা কর্মসূচির অংশ হিসাবে এপ্রিল থেকে নভেম্বরের মধ্যে ৩০ সপ্তাহ ধরে এ গবেষণা চালানো হয়। অন্যান্য বিজ্ঞানীদের দিয়ে গবেষণাপত্র পর্যালোচনা করার আগেই এর ফল প্রকাশ করা হয়েছে মেডরিক্সিভ ওয়েবসাইটে। গবেষণায় দেখা যায়, অ্যান্টিবডি না থাকা ১১,০৫২ জন কর........ বিস্তারিত

জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

হাড্ডাহাড্ডি লড়াই ও বহু তিক্ততার পর ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্য পেনসিলভেইনিয়ায় জয়ের মধ্য দিয়ে বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পকে হারিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হলেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন।

তার রানিং মেট ভারতীয় বংশোদ্ভূত কমলা হ্যারিস মার্কিন নাগরিক হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন। তিনিই যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম নারী, প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ ও প্রথম ভারতীয় হিসাবে এই পদ অলংকৃত করবেন।


বাইডেনের নির্বাচিত হওয়ার মধ্য দিয়ে বহু আলোচনা ও বিতর্কের জন্ম দেওয়া রিপাবলিকান দলের নেতা ডনাল্ড ট........ বিস্তারিত

মার্কিন নির্বাচন : পেনসিলভানিয়াতেও এগিয়ে গেলেন বাইডেন মার্কিন নির্বাচন : পেনসিলভানিয়াতেও এগিয়ে গেলেন বাইডেন

পোস্টাল ভোটের কারণে দুই দিনের বেশি সময় ধরে মার্কিন নির্বাচনের ভোট গণনা চলছে। ৩ নভেম্বরের পোস্টাল ভোট এখনও কেন্দ্রে এসে পৌঁছাচ্ছে। আর সেগুলো যাচাই বাছাই করে গণনা করতে সময় চলে যাচ্ছে।


গণনা চলতে থাকা জর্জিয়া ও পেনসিলভানিয়া রাজ্যে শুরু থেকেই এগিয়ে ছিলেন ট্রাম্প। কিন্তু বাংলাদেশ সময় শুক্রবার রাতে নাটকীয়ভাবে পেনসিলভানিয়া এগিয়ে গেলেন বাইডেন।


মার্কিন গণমাধ্যমের তথ্যে দেখা যাচ্ছে, ৯৮% গণণা হওয়া ২০ ইলেকটোরাল ভোটের এই রাজ্যে সাড়ে ৭ হাজারের মতো ভোটে এগিয়ে গেছেন বাইডেন। এ নিয়ে তিনটি রাজ্যে এগিয়ে থাকলেন তিনি।


এর আগে ........ বিস্তারিত

মার্কিন নির্বাচন : জর্জিয়াতেও এগিয়ে গেলেন বাইডেন মার্কিন নির্বাচন : জর্জিয়াতেও এগিয়ে গেলেন বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যে ৯৯ শতাংশ ভোট গণনা শেষ হয়েছে। এখন পর্যন্ত গণনা হওয়া ব্যালট অনুযায়ী রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ৯১৭ ভোটে পেছনে ফেলেছেন ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন। স্থানীয় সময় শুক্রবার সকাল পর্যন্তও গণনা করা হচ্ছে ক্লেইটন কাউন্টির ফলাফল। গত মঙ্গলবার পর্যন্ত ডাক যোগে পৌঁছানো ভোটই মূলত এখন গণনা করা হচ্ছে। ফলে চূড়ান্ত দুই প্রার্থীর চূড়ান্ত ফলাফল বদলে যেতে পারে।১৬ ইলেক্টোরাল ভোটের এই রাজ্যে জিতলে বাইডেনের ইলেক্টোরাল ভোট ২৭০ ছাড়িয়ে ২৮০ তে দাঁড়াবে আর তাই তিনিই হতে য........ বিস্তারিত

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন : 'নেভাদা' জিতলেই বাইডেনের জয় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন : 'নেভাদা' জিতলেই বাইডেনের জয়

ইতিমধ্যেই ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্য মিশিগানের ১৬টি ইলেক্টোরাল ভোট জিতে নিয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন। গণমাধ্যমের খবর  অনুযায়ী, ২৬৪ ইলেক্টোরাল ভোট নিয়ে অবস্থান করছেন জয়ের দ্বারপ্রান্তে। এখন এগিয়ে থাকা আরেক ব্যাটলগ্রাউন্ড নেভাদার ৬টি ইলেক্টোরাল ভোট পেলেই ২৭০ ইলেক্টোরাল ভোটের সেই কাঙ্ক্ষিত ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছাবেন বাইডেন। তবে তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শিবিরের পক্ষ থেকে এরইমধ্যে ৩টি রাজ্যের ভোট গণনা নিয়ে আপত্তি তুলে আদালতে যাওয়ার কথা জানানো হয়েছে।


বিস্তারিত

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন: ডেমোক্রেট প্রার্থী বাইডেন এগিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন: ডেমোক্রেট প্রার্থী বাইডেন এগিয়ে

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মোট ইলেকটোরাল কলেজ ভোট ৫৩৮টি। এর মধ্যে ৪৫১ টি ইলেক্টোরাল ভোটের ফলাফল ঘোষণা হয়েছে। এখনও বাকী রয়েছে আরও ৮৭ ইলেক্টোরাল ভোট।



যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হতে প্রার্থীকে ২৭০ ইলেক্টোরাল ভোট পেতে হবে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত, বাইডেন পেয়েছেন ২৩৮ ইলেক্টোরাল ভোট আর অন্যদিকে ট্রাম্প পেয়েছেন ২১৩ টি ইলেক্টোরাল ভোট। ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের দরকার ৩২ ইলেক্টোরাল ভোট, রিপাবলিকান প্রার্থী বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পে........ বিস্তারিত

ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির মৃত্যু, প্রধানমন্ত্রীর শোক ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির মৃত্যু, প্রধানমন্ত্রীর শোক

করোনায় আক্রান্ত ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি মারা গেছেন সোমবার ৮৪ বছর বয়সী সাবেক এই রাষ্ট্রপতির মৃত্যুর খবর জানিয়েছে এনডিটিভি


এক টুইট বার্তায় রাষ্ট্রপতি........ বিস্তারিত

লেবাননে বিস্ফোরণ, নিহত ৭৮ আহত ৪০০০ লেবাননে বিস্ফোরণ, নিহত ৭৮ আহত ৪০০০

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে বিস্ফোরক দ্রব্যের গুদামে ভয়াবহ এক বিস্ফোরণে অন্তত ৭৮ জনের মৃত্যু হয়েছে, আহত হয়েছ চার হাজারের বেশি মানুষ, বহু ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকালে বৈরুতের বন্দর এলাকার ওই বিস্ফোরণে পুরো বৈরুত শহর ভূমিকম্&........ বিস্তারিত

বিশ্বজুড়ে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১ কোটি ছাড়ালো, মৃত ৫ লাখ বিশ্বজুড়ে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১ কোটি ছাড়ালো, মৃত ৫ লাখ

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ছাড়িয়েছে আর মৃতের সংখ্যা ছাড়ালো ৫ লাখ। । আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটার এ তথ্য জানিয়েছে।
তারা জানায়, আজ ২৮ জুন, ওয়ার্ল্ড স্ট্যান্ডার্ড টাইম ১০.৩৫ বা বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪.৩&#........ বিস্তারিত

মানব পাচার রিপোর্টের র্যাবঙ্কিংয়ে বাংলাদেশ উন্নত অবস্থান অর্জন করেছে মানব পাচার রিপোর্টের র্যাবঙ্কিংয়ে বাংলাদেশ উন্নত অবস্থান অর্জন করেছে

মানবপাচার প্রতিরোধে বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রের মানব পাচার সংক্রান্ত রিপোর্টের র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নত অবস্থান অর্জন করেছে। বিদেশে অবৈধ অভিবাসন রোধে ঢাকার প্রয়াসের স্বীকৃতি দিয়ে মানবপাচার বিরোধী যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতরের বার্........ বিস্তারিত

সৌদিতে অবস্থানরত কেবল একহাজার মানুষ এবার হজে অংশ নিতে পারবেন সৌদিতে অবস্থানরত কেবল একহাজার মানুষ এবার হজে অংশ নিতে পারবেন

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে সৌদি আরবের নাগরিক এবং দেশটিতে অবস্থানরত বিদেশিদের নিয়ে সীমিত পরিসরে পবিত্র হজ পালনের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। দেশটির হজবিষয়ক মন্ত্রী মোহাম্মদ বেনতেন এ ঘোষণা দিয়ে বলেন, মাত্র এক হাজারের মতো মানুষ এবার........ বিস্তারিত

করোনা শনাক্তে চীনকে টপকে গেল বাংলাদেশ, বিশ্বে মোট শনাক্ত ৭৭ লাখ ৫৮ হাজার মৃত ৪ লাখ ২৮ হাজার করোনা শনাক্তে চীনকে টপকে গেল বাংলাদেশ, বিশ্বে মোট শনাক্ত ৭৭ লাখ ৫৮ হাজার মৃত ৪ লাখ ২৮ হাজার

শনাক্তের সংখ্যায় করোনা ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল  চীনকে ছাড়িয়ে গেল বাংলাদেশ।  আজ ১৩ জুন, শনিবার পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৪ হাজার ৩৭৯ জন। অন্যদিকে চীনে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৩ হাজার ৭৫ জন।


বিশ্বব্যাপী কর........ বিস্তারিত

করোনাভাইরাস 'হয়তো কখনোই নির্মূল হবে না'- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাভাইরাস 'হয়তো কখনোই নির্মূল হবে না'- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করেছে যে পৃথিবী থেকে নভেল করোনাভাইরাস 'হয়তো কখনোই নির্মূল হবে না।'


এই ভাইরাস কবে নির্মূল হবে, বুধবার সেবিষয়ে ধারণা প্রকাশ করার ব্যাপারেও সতর্ক করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইমার্জেন্সি বিষয়ের পর........ বিস্তারিত

ঈদের ছুটিতে ২৪ ঘণ্টা কারফিউ থাকছে সৌদিতে ঈদের ছুটিতে ২৪ ঘণ্টা কারফিউ থাকছে সৌদিতে

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ঈদুল ফিতরের পাঁচ দিন ছুটিতেও সৌদি বিস্তারিত

৩০ এপ্রিল : করোনায় বিশ্বব্যাপি দীর্ঘতর হচ্ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা, আক্রান্ত ৩২,২১,৬১৭ আর মৃত্যু ২,২৮,২৬৩ ৩০ এপ্রিল : করোনায় বিশ্বব্যাপি দীর্ঘতর হচ্ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা, আক্রান্ত ৩২,২১,৬১৭ আর মৃত্যু ২,২৮,২৬৩

প্রাণঘাতি ভাইরাস কোভিড-১৯ মহামারীতে লাশের সারি ক্রমশ দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে। প্রতিদিন যোগ হচ্ছে হাজারো মানুষ। প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছেন হাজারে হাজার। প্রাণহানি এরমধ্যে দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ২৮ হাজার ছাড়িয়েছে।


বিশ্বব্যাপী করোনাভাই&........ বিস্তারিত

সীমিত এবং সংক্ষিপ্ত পরিসরে মাসজিদুল হারাম ও মাসজিদে নববীতে শুরু হচ্ছে তারাবিহ, সরাসরি প্রচার হবে টিভিতে সীমিত এবং সংক্ষিপ্ত পরিসরে মাসজিদুল হারাম ও মাসজিদে নববীতে শুরু হচ্ছে তারাবিহ, সরাসরি প্রচার হবে টিভিতে

সৌদি আরবে শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র মাহে রমজান। ফলে বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) থেকে মক্কার পবিত্র মসজিদুল হারাম ও মদিনার মসজিদে নববিতে ইশার পরপরই শুরু হবে তারাবি।


তবে মহামারী করোনা পরিস্থিতির কারণে এবার এই দুই ........ বিস্তারিত

বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা লাখ ছাড়ালো বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা লাখ ছাড়ালো

বিশ্বজুড়ে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডব প্রবল হয়ে উঠেছে। কোনো কোনো দেশে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা সামান্য কমলেও তাতে স্বস্তি ফিরছে না। কারণ দেশে দেশে দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। সংখ্যায় হচ্ছে নতুন নতুন রেকর্ড। ইতোমধ্যে বিশ্বে করোনা........ বিস্তারিত

করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ালো ১০ লাখ করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ালো ১০ লাখ

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১০ লাখ ১৫ হাজার ৮৫০ জন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ৫৩ হাজার ২১৬ জন মানুষ। সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ১ হাজার ৯৯১ জন ভুগছেন ৭ লাখ ৪৯ হাজার ৬৪৩ জন। জানি&#........ বিস্তারিত

মসজিদে নামাজ সাময়িক বন্ধ রাখা যাবে : আল আজহারের ফতোয়া মসজিদে নামাজ সাময়িক বন্ধ রাখা যাবে : আল আজহারের ফতোয়া

মসজিদ থেকেও প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি থাকায় মসজিদে নামাজের জামাত ও জুমার নামাজ সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা যাবে বলে মত দিয়েছেন মিসরের আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের ফতোয়া বোর্ড।


করোনাভাইরাস দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে &........ বিস্তারিত

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন করোনায় আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন করোনায় আক্রান্ত

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। শুক্রবার (২৭ মার্চ) টুইটারে এক ভিডিওবার্তায় এখবর জানালেন তিনি নিজেই।


টুইটে বরিস জানান, সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় তার করোনা আক্রান্ত হওয়ার মৃদু লক্ষণ ছিল। পরে টেস্ট করলে কোভিড-১৯ প&#........ বিস্তারিত

৭১ বছর বয়সী প্রিন্স চার্লস করোনায় আক্রান্ত ৭১ বছর বয়সী প্রিন্স চার্লস করোনায় আক্রান্ত

ব্রিটিশ রাজ পরিবারে প্রিন্স চার্লসের শরীরে মিলল করোনা ভাইরাস। এএফপি জানায়, প্রিন্স চার্লস করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি সেলফ আইসোলেশনে স্কটল্যান্ডে রয়েছেন।


রাণী এলিজাবেথের পুত্র প্রিন্স চার্লস সম্পর্কে ক্লারে&#........ বিস্তারিত

আজ মধ্যরাত থেকে ২১ দিনের লকডাউনে ভারত, ঘোষণা মোদির আজ মধ্যরাত থেকে ২১ দিনের লকডাউনে ভারত, ঘোষণা মোদির

ভারত জুড়ে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০০ ছাড়িয়েছে। তার জেরে এ বার সারা দেশে আগামী তিন সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করলেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত এই লকডাউন জারি থাকবে........ বিস্তারিত

করোনা মোকাবেলায় মসজিদুল হারাম ও নববী ছাড়া সৌদি আরবে সব মসজিদে নামাজ স্থগিত করোনা মোকাবেলায় মসজিদুল হারাম ও নববী ছাড়া সৌদি আরবে সব মসজিদে নামাজ স্থগিত

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সৌদি আরবে মসজিদে হারাম ও মসজিদে নববী ছাড়া সব মসজিদে নামাজ স্থগিত করেছে দেশটি। এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের বিস্তার ঠেকানোর অংশ হিসেবে সারাদেশের সব মসজিদের প্রধান জামাত ও শুক্রবারের জুমার নামাজ স্থগিত করে রিয়াদ। সংয........ বিস্তারিত

দেশে নতুন আক্রান্ত ২, করোনা ছড়ালো ১৪৯ দেশে, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৮১৪ দেশে নতুন আক্রান্ত ২, করোনা ছড়ালো ১৪৯ দেশে, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৮১৪

দেশে নতুন করে আরও দুই বাংলাদেশির শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে। এদের একজন ইতালি ও অন্যজন জার্মানী থেকে এসেছেন।


শনিবার (১৪ মার্চ) রাতে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। 


তù........ বিস্তারিত

করোনা বিশ্ব মহামারী : বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা করোনা বিশ্ব মহামারী : বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা

চীনের উহান শহর থেকে চাড়িয়ে করোনা ভাইরাস এখন বিশ্বব্যাপি ছড়িয়ে পড়েছে। এরই মধ্যে বিশ্বের ১১৪ টির বেশি দেশে ছড়িয়েছে এই ভাইরাস। এই ভাইরাসের সংক্রমণ আরও কতটা ব্যাপকভাবে ছড়াতে পারে এবং কত মানুষ এতে আক্রান্ত হতে পারে তা নিয়ে চিন্তিত বিশেষজ্........ বিস্তারিত

গুজবে বিভ্রান্তি, করোনা থেকে মুক্তির আশায় মদ খেয়ে ইরানে ২৭ জনের মৃত্যু গুজবে বিভ্রান্তি, করোনা থেকে মুক্তির আশায় মদ খেয়ে ইরানে ২৭ জনের মৃত্যু

করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে মদপান করে ২৭ ইরানির মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া হাসপাতালে ভর্তি আছেন আরও ২১৮ জন।


মিথানলের বিষক্রিয়ায় তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে এবিসি নিউজ। সোমবার ইরানের বার্তা সংস্থা মেহের জানিয়েছে, দেশটির খুজেস্তা........ বিস্তারিত

৫৪টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা,  মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৯২২ ৫৪টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৯২২

বিশ্বজুড়ে নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। আগের তুলনায় চীনে এতে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা কিছুটা কমলেও বিপরীত চিত্র বাইরের দেশে। এরই মধ্যে ইরান, ইতালি, দক্ষিণ কোরিয়ায় ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। আতঙ্ক বাড়ছে অন্য দ&#........ বিস্তারিত

দিল্লি পৌঁছলো উহানে আটকে পড়া ২৩ বাংলাদেশিসহ ১১২ জন দিল্লি পৌঁছলো উহানে আটকে পড়া ২৩ বাংলাদেশিসহ ১১২ জন

করোনা ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে আটকে পড়া ২৩ বাংলাদেশিসহ ১১২ জনকে  ভারতের রাজধানী দিল্লিতে আনা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভারতীয় বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইটে করে তাদেরকে চীন থেকে দিল্লিতে আনা হয়। এমনটি নিশ্চিত করেছ........ বিস্তারিত

ইন্টারনেটের বিকল্প আবিষ্কার করল রাশিয়া ইন্টারনেটের বিকল্প আবিষ্কার করল রাশিয়া

বৈশ্বিক ইন্টারনেট ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ করে যুক্তরাষ্ট্র। ফলে ক্ষেত্রটিতে তাদের কর্তৃত্ব সবচেয়ে বেশি। এই কর্তৃত্ব থেকে বেরিয়ে আসতে দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রাশিয়া ও চীন। অবশেষে সাফল্যের মুখ দেখল রাশিয়া।


ইন্টারনেটের বিক&........ বিস্তারিত

রাখাইনে গণহত্যা : আইসিজেতে বিচারের শুনানি শুরু রাখাইনে গণহত্যা : আইসিজেতে বিচারের শুনানি শুরু

সুচি সরকারের বিদ্বেষমূলক প্রচার রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন উস্কে দিয়েছে ; গুরুত্বপূর্ণ আলামত ধ্বংস করা হয়েছে; সেনাবাহিনী মানবতা বিরোধী অপরাধ করেছে; হেগে আদালতের বাইরে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ


 


জনকণ্ঠ :: রোহিঙ্গা গণহত্যার অভি........ বিস্তারিত