রাইস ব্র্যান ও সরিষার তেল উৎপাদন বাড়ানো হবে - বাণিজ্যমন্ত্রী

রাইস ব্র্যান ও সরিষার তেল উৎপাদন বাড়ানো হবে - বাণিজ্যমন্ত্রী

ভোজ্যতেলের সঙ্কট কাটাতে অভ্যন্তরীণ উৎপাদন বাড়ানোর তাগিদ দেয়া হয়েছে। বিশেষ করে রাইস ব্র্যান ও সরিষার তেলের উৎপাদন বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে সরকার। ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই ভোগ্যপণ্যের বাজার স্থিতিশীল রাখতে সরকারী সংস্থা টিসিবিকে সরাসরি বিদেশ থেকে খাদ্যপণ্য আমদানির পরামর্শ দিয়েছে। সংগঠনটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, টিসিবি ব্যবসায়ীদের অমদানিকৃত পণ্য কিনে ভর্তুকি মূল্যে বিক্রি করছে। এতে বাজারে পণ্যের জোগান কমে যাচ্ছে। এ অবস্থায় নিত্যপণ্যের দাম কমাতে হলে বিদেশ থেকে সরাসরি আমদানি করা প্রয়োজন বলে মনে করছে এফবিসিসিআই। বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিক বাজারের ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে পামতেল ও সয়াবিনের ব্যবহার কমিয়ে সরিষা এবং রাইস ব্র্যান তেলের উৎপাদন বাড়ানো হবে। গ্লোবাল এ ক্রাইসিসকে সম্মিলিতভাবে মোকাবেলা করতে হবে। ভোজ্যতেলের এখন যে অবস্থা, তাতে আশা করছি আর কোন সঙ্কট হবে না। এছাড়া ভারত গম রফতানি বন্ধ করেনি বলেও তিনি জানিয়েছেন।

বুধবার দ্রব্যমূল্য ও বাজার পরিস্থিতি নিয়ে গঠিত টাস্কফোর্স কমিটির দ্বিতীয় সভা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। সভায় তিনি বলেন, বার্ষিক চাহিদার ৯০ শতাংশ ভোজ্যতেল আন্তর্জাতিক বাজার থেকে আমদানি করতে হয়। এ কারণে আমদানি নির্ভরতা কমিয়ে দেশীয় তেলের উৎপাদন বাড়ানো জরুরী হয়ে পড়ছে। দেশে এখন ৫০ থেকে ৬০ হাজার টন রাইস ব্র্যান অয়েল উৎপাদন হয় এবং এটি ‘খুব সহজেই’ ৭ লাখ টনে উন্নীত করা সম্ভব বলে তিনি মন্তব্য করেছেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, সেক্ষেত্রে রাইস ব্র্যানের সুফল সম্পর্কে প্রচার বাড়াতে হবে। ডাক্তারদের এ নিয়ে কথা বলতে হবে। পাশাপাশি সরিষার উৎপাদন বাড়ানোর সম্ভাবনার কথাও কৃষি মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে জানিয়ে দিয়েছে। এছাড়া দেশে সয়াবিন উৎপাদন হচ্ছে। কৃষিতে নানামুখী কর্মসূচীর মাধ্যমে সয়াবিন বীজের উৎপাদন বাড়ানো সম্ভব। এক্ষেত্রে সরকারী নীতিগত সহায়তা বাড়ানোর তাগিদ দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, সয়াবিন ও পামঅয়েল খাওয়াতে এদেশে এক সময় ব্যাপকহারে বিদেশী কোম্পানিগুলো মার্কেটিং করেছে। এর ফলে তেলের বাজারে সয়াবিন ও পামঅয়েলের আধিপত্য বাড়ে। কিন্তু এদেশে সব সময় সরিষা, তিল, মসনে এবং ভেন্না থেকেও বিপুল পরিমাণ তেল উৎপাদন হতো। শুধু তাই নয়, এসব তেল দিয়ে চাহিদা পূরণ করতেন দেশের মানুষ। কিন্তু ভোজ্যতেল বিশেষ করে সয়াবিন ও পামঅয়েলের ব্যাপক মার্কেটিংয়ের কারণে দেশীয় উৎপাদন হ্রাস পেয়ে তলানিতে এসে ঠেকেছে। এ অবস্থায় তেল জাতীয় সব ধরনের বীজের উৎপাদন বাড়িয়ে দেশীয় উৎপাদন বাড়ানোর কথা বলছেন সংশ্লিষ্টরা। সম্প্রতি মহামারীর মধ্যে ভোজাতেলের বাজারে যে অস্থিরতার শুরু হয়েছিল, তিন মাস আগে ইউক্রেন যুদ্ধের পর তা আরও চড়তে থাকে। এ পরিস্থিতিতে ভোজ্যতেল আমদানির ভ্যাট ও শুল্ক কমিয়ে আনা হয়। তাতে বাজার কিছুটা স্থিতিশীল হলেও ঈদের আগে খুচরা বাজার থেকে হঠাৎ উধাও হয়ে যায় সয়াবিন তেল। এরপর সরকার সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ৪০ টাকা বাড়ালেও আগের তেল অনেক ব্যবসায়ী মজুদ রেখে বাড়তি দরে বিক্রি করছেন বলে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের অভিযানে প্রকাশ হয়। এই পরিস্থিতিতে ভোজ্যতেলের আমদানি নির্ভরতা কমানোর বিষয়টি আলোচনায় আনা হচ্ছে। সয়াবিনের বিকল্প হিসেবে রাইস ব্র্যান ও সরিষার তেল উৎপাদন বাড়ানোর কথা ভাবা হচ্ছে। টাস্কফোর্সের বৈঠকে ভোজ্যতেল ছাড়াও পেঁয়াজ, গম ও লবণের মূল্য এবং সরবরাহ পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ভারত গম রফতানি বন্ধ করছে এটা কিন্তু সঠিক নয়। এ ব্যাপারে ভারতীয় হাইকমিশনের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, বাংলাদেশের জন্য রফতানি বন্ধ রাখা হয়নি। এ কারণে কৃত্রিম সঙ্কট তৈরি করে গম ও ময়দার দাম বাড়ানোর কোন সুযোগ নেই। দেশে গমের মজুদ সন্তোষজনক অবস্থায় রয়েছে এবং সঙ্কট তৈরি হওয়ার কোন কারণ নেই। তিনি বলেন, জিটুজি ভিত্তিতে আমদানি চালু রয়েছে। পাশাপাশি বেসরকারী পর্যায়ে বাংলাদেশী কোন ব্যবসায়ী আমদানি করতে চাইলে সেই সুযোগ করে দেয়া হবে। রফতানি বন্ধের খবরের সমালোচনা করে তিনি জানান, কিছু অসাধু ব্যবসায়ী মেঘ দেখলেই বলে ঝড় এসে গেল। এখানেও সেটি হয়েছে। পেঁয়াজের উৎপাদন খরচ কেজিপ্রতি ২০ থেকে ২২ টাকা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এর বাইরে বড় পরিমাণের পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে যায়। এখন আমাদের ভাবনার বিষয় হচ্ছে আমরা কত দামে পেঁয়াজ খাব। কৃষকদেরও কিছু প্রণোদনা দিতে হবে তাহলে তারা উৎপাদন বাড়াবে। গত বছর কৃষক পেঁয়াজের ভাল দাম পেয়েছে এবার আড়াই লাখ টন উৎপাদন বাড়িয়েছে। পেঁয়াজের বাজার পরিস্থিতি নিয়ে সরকার সতর্ক রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এখন আমদানি অনুমোদন বন্ধ করা আছে। প্রয়োজন হলে সেটা চালু করে দেয়ার সুযোগ সরকারের রয়েছে। প্রতিবেশী দেশের তুলনায় বাংলাদেশে লবণের দাম বেশি বলে বৈঠকে আলোচনা উঠলে মন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বসে বিস্তারিত আলাপ আলোচনা করা হবে। আন্তর্জাতিক বাজারে বেশ কিছু ভোগ্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে অভ্যন্তরীণ বাজারে যে সঙ্কট সৃষ্টি হয়েছে, তা মোকাবেলায় সবাইকে মিলেমিশে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

ডলারের দাম বাড়ায় সমস্যা তৈরির বিষয়ে তিনি বলেন, গত দুই বছর আমদানি কম ছিল। এখন খুলে যাওয়ায় ক্যাপিটালে প্রভাব পড়েছে, দুই বছরের চাপ পড়েছে এক সঙ্গে। সবকিছু মিলে একটা প্রভাব পড়েছে। আমাদের বৈদেশিক রিজার্ভে চাপ পড়েছে। গত দুই বছর আমদানি কমায় বেড়েছিল রিজার্ভ। এখন চাপ পড়ায় এই সমস্যা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, শ্রীলঙ্কায় বিপদ বলে আমাদের বিপদ তা তো নয়। আমরা তো তাদের সহায়তা করেছি। আমাদের ঘাবড়ানোর কোন কারণ নেই। প্রধানমন্ত্রী এটি নিয়ে সুন্দরভাবে বলেছেন আমাদের দেশে বৈশ্বিক প্রভাব পড়েছে, সাশ্রয়ী হতে হবে। বৈঠকে বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক এসএইএম সফিকুজ্জামান, টিসিবির চেয়াারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আরিফুল হাসান, এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি আমিন হেলালী ও বিভিন্ন খাতের ব্যবসায়ী প্রতিনিধি, গোয়েন্দা সংস্থা, এনবিআর, বাংলাদেশ ব্যাংক, প্রতিযোগিতা কমিশন ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ বলেন, বিশ্বব্যাপী দ্রব্যমূল্যের বাজার অস্থির। অনেক পণ্যের ঘাটতিও আছে। বাড়ছে দাম। তবে সে দিক থেকে বাংলাদেশ এখনও বেশ স্বস্তিতে রয়েছে। দেশে যা হয়েছে সেটি কিছু ব্যবসায়ীর অপতৎপরতার কারণে হয়েছে। যার দায়ভার পুরো ব্যবসায়ী সমাজের ওপর পড়ছে। সরকার সে দিক থেকে সতর্ক। এখানে যা করার করছে। তবে শঙ্কা কাটেনি। তিনি বলেন, সামনে কোরবানির ঈদ। সেখানে পেঁয়াজ, আদা, রসুন, ভোজ্যতেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে হবে। ভবিষ্যতে এসব পণ্য মজুদ করে কেউ যাতে সুযোগ নিতে না পারে সে জন্য যার যার জায়গা থেকে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।

টিসিবিকে সরাসরি আমদানির পরামর্শ ॥ সরকারী বাজার নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ-টিসিবিকে সরাসরি বিদেশ থেকে পণ্য আমদানির পরামর্শ দিয়ে ভর্তুকি মূল্যে বিক্রির পরামর্শ দিয়েছে ফেডারেশ অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই)। টাস্কফোর্স কমিটির বৈঠকে অংশ নিয়ে সংগঠনটির সহ-সভাপতি আমিন হেলালী বলেন, টিসিবি ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে পণ্য কেনায় বাজারে নিত্যপণ্যের সঙ্কট তৈরি হচ্ছে। অথচ টিসিবি যদি সরাসরি আমদানি করে বিক্রি কার্যক্রম চালু রাখত তাহলে এ পণ্যের বাড়তি জোগান হতো বাজারে। এ অবস্থার পরিবর্তন হওয়া প্রয়োজন। তিনি জানান, কোরবানি সামনে রেখে টিসিবি সারাদেশে কোটি পরিবারের হাতে পণ্য পৌঁছে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এটি খুবই ভাল উদ্যোগ। কিন্তু পণ্য যেন সরাসরি আমদানি করা হয়। অভ্যন্তরীণ বাজার থেকে পণ্য কেনা হলে বাজারের ওপর বাড়তি চাপ তৈরি হয়। এ কারণে সংস্থাটির সরাসরি আমদানি করা প্রয়োজন। কোরবানি ঈদ সামনে রেখে দেশে লবণের সঙ্কটের আশঙ্কার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, এখনই বস্তাপ্রতি লবণ ৭০০ টাকা থেকে বেড়ে ৮০০ টাকা হয়ে গেছে। কোরবানির চামড়া সংরক্ষণে বাড়তি লবণের প্রয়োজন হবে। এ অবস্থায় লবণের বাজার স্থিতিশীল রাখতে এখনই পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন। জনকণ্ঠ ।

More News

পদ্মা সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

স্বপ্ন পুরণের ঝিলিক লেগেছে প্রতিটি মানুষের মুখে। অবশেষে স্বপ্ন হলো সত্যি। চালু হলো বাঙালীর গর্ব পদ্মা সেতু।


আজ শনিবার (২৫ জুন) বেলা ১১টা ৫৮ মিনিটে লাখ লাখ মানুষের পদচারণা মুখর ও খুশির জোয়ার লাগা প্রমত্তা পদ্মা প্রান্তে সব অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বহুল প্রতিক্ষিত পদ্মা সেতুর উদ্বোধন ঘোষণা করেন দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ স্থাপনাটি উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে উম্মোচন হলো যোগাযোগ ব্যবস্থায় নতুন দ্বার। খুলে গেলো বহুমুখি অর্থনৈতিক বিকাশের নতুন দিগন্ত। অবসান হলো প্রমত্তা পদ্মা পাড়ি দেয়ার হাজা........ বিস্তারিত

পদ্মা সেতুর নিরাপত্তায় সেনাবাহিনী পদ্মা সেতুর নিরাপত্তায় সেনাবাহিনী

মামুন উর রশীদ :: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থাকে সহজতর করার লক্ষ্যে দেশের বৃহৎ নদীসমূহের ওপর দিয়ে সেতু নির্মাণ করার স্বপ্ন দেখেছিলেন। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে তাঁর সুযোগ্যকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০১ সালের ৪ জুলাই মানুষের স্বপ্নের পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন এবং ২০১৫ সালে দেশের নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু করার দূরদর্শী ও বলিষ্ঠ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। জাতির আস্থার প্রতীক বাংলাদেশ সেনাবাহিনী স্বাধীনতা পরবর........ বিস্তারিত

সেতুর চেয়েও বড় সেতুর চেয়েও বড়

ওবায়দুল কবির :: বিশ্বের কোন প্রকল্প নিয়ে এত আলোচনা হয়নি। পড়তে হয়নি এত প্রতিরোধের মুখে। এত ষড়যন্ত্র, অভিযোগ, নেতিবাচক বক্তব্য, গুজব-যেন রূপকথার গল্প। আবার কখন যে নেতিবাচক বক্তব্য ধীরে ধীরে ইতিবাচক হয়ে উঠেছে, ‘তোমার’ থেকে হয়ে গেছে ‘আমাদের’, শুরু হয়েছে কৃতিত্ব নেয়ার প্রতিযোগিতা, তাও এক বিস্ময়। পদ্মা সেতুর কথাই বলছি। এটি শুধু একটি রড-কংক্রিট-ইস্পাতে নির্মিত সেতু নয়, সেতু থেকে আরও বড় কিছু। বাঙালীর আবেগ, উন্নত জীবনের স্বপ্ন, উন্নয়নের উপাখ্যান, অনন্য ভালবাসা, আরও অনেককিছু। আজ এই বহুল আলোচিত সেতুর উদ্বোধনের দিন। কোট........ বিস্তারিত

চ্যালেঞ্জ জয়ে স্বপ্ন পূরণ, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সেই মাহেন্দ্রক্ষণ আজ চ্যালেঞ্জ জয়ে স্বপ্ন পূরণ, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সেই মাহেন্দ্রক্ষণ আজ

কাওসার রহমান :: স্বপ্ন এখন সত্যি। এদেশের মানুষ দীর্ঘ সাত বছর ধরে যে স্বপ্ন দেখছিল, পদ্মা নদীর ওপরও সেতু হবে, সেই স্বপ্ন এখন আর স্বপ্ন নয়, দৃশ্যমান বাস্তবতা। পুরো জাতির স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে আজ। সব প্রস্তুতিও সম্পন্ন। উদ্বোধন হচ্ছে আজ শনিবার সকাল ১০টায়। শেষ হচ্ছে অপেক্ষার দীর্ঘ প্রহর। যে স্বপ্ন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে মূল সেতুর নির্মাণ ও নদীশাসন কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছিলেন, তাঁর হাত দিয়েই আজ উদ্বোধন হতে যাচ্ছে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর। এর সকল কৃতিত্ব জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হা........ বিস্তারিত

দেশের অগ্রযাত্রা আর কেউ থামাতে পারবে না - প্রধানমন্ত্রী দেশের অগ্রযাত্রা আর কেউ থামাতে পারবে না - প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা দেশের মানুষের যে কোন ত্যাগ স্বীকারে তাঁর সবসময় প্রস্তুত থাকার কথা উল্লেখ করে বলেছেন, সরকারের ধারাবাহিকতা নিয়ে দেশ চলতে থাকলে এদেশের অগ্রযাত্রা আর কেউ থামাতে বা রুখতে পারবে না। আর ধারাবাহিক গণতন্ত্র আছে বলেই বাংলাদেশের উন্নতি হচ্ছে। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। গণমানুষের সমর্থন নিয়ে আমরা পদ্মা সেতুর নির্মাণ নিজেদের অর্থায়নে করতে পেরেছি। ঠিক এভাবেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। আর কখনও বাংলাদেশ পরমুখাপেক্ষী হবে না, কারো কাছে হাত পেতে চলবে না। বাংলাদেশের জনগণকে আমি স্যালুট করি। ইনশাআল্লাহ, জনগণের সেবা ক........ বিস্তারিত

আগামী নির্বাচনে জনগণ নৌকাই বেছে নেবে - আওয়ামী লীগ সভানেত্রী আগামী নির্বাচনে জনগণ নৌকাই বেছে নেবে - আওয়ামী লীগ সভানেত্রী

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা আগামী নির্বাচনেও দেশের জনগণ নৌকাকে বেছে নেবে এমন দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেছেন, দেশের যা কিছু অর্জন তা আওয়ামী লীগের হাত ধরেই এসেছে। বিএনপির হৃদয়ে তো পাকিস্তান, এরা দেশের ভাল চাইবে না এটাই স্বাভাবিক। আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই জনগণের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ করে আসছে। দেশবাসীও জানে নৌকা আওয়ামী লীগের প্রতীক, উন্নয়নের প্রতীক- সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে তাই নৌকা ছাড়া তাদের বিকল্প নেই, গতি নেই। কেননা আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে নিজের ভাগ্য গড়ার জন্য নয় বরং মানুষের ভাগ্য গড়তে। জন্মলগ্ন থেক........ বিস্তারিত

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মাস্ক পরার নির্দেশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মাস্ক পরার নির্দেশ

দেশে আবারও করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাস্ক পরা স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) অধিদপ্তর বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) মাউশির সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) রূপক রায়ের সই করা নির্দেশনা থে........ বিস্তারিত

২৩ জুন, ২০২২ : ১৪.৩২ হারে আজ শনাক্ত ১৩১৯ ২৩ জুন, ২০২২ : ১৪.৩২ হারে আজ শনাক্ত ১৩১৯

২৪ ঘণ্টায় ৯ হাজার ২১৮টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ৯ হাজার ২১৪টি নমুনা। এতে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৩১৯ জনের। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৩২ শতাংশ। মহামারীর শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ।


গত ২৪ ঘণ্টায় (বুধবার সকাল আটটা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল আটটা পর্যন্ত) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৩১৯ জন। এই সময়ের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে একজনের। ফলে মোট মারা যাওয়ার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৯ হাজার ১৩৫ জনে। আর মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৬০ হাজার ৫২৮ জনে। শনাক্তের হার ১৪ ........ বিস্তারিত

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে জাতির পিতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘এবার বন্যাটা একটু বড় আকারে আসবে এমন আশঙ্কার কথা